প্রথম ধাপের পর করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়েও কাবু লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। এমন পরিস্থিতিতে দেশটিতে কোপা আমেরিকা আয়োজন করায় ক্ষেপেছেন ফুটবলার মার্সেলো মার্তিন্স।

কোপার আয়োজক দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল কনফেডারেশনের (কনমেবল) সমালোচনা করেছিলেন তিনি।

এজন্য বলিভিয়ার এই ফরোয়ার্ডকে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ ও ২০ হাজার ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কোপায় অংশ নিয়ে ব্রাজিলে পা রেখেই করোনার কোপে পড়েন মার্তিনেস। তিনিসহ বলিভিয়ার তিন খেলোয়াড়ের কোভিড-১৯ টেস্টের ফল পজিটিভ আসে।

এরপর তার দল প্যারাগুয়ের বিপক্ষে দলের ৩-১ ব্যবধানে হেরে যায়।

এর পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কনমেবলের কড়া সমালোচনা ৩৪ বছর বয়সি মার্তিন্স লেখেন, এমনটা করার জন্য ধন্যবাদ কনমেবল। দায় পুরাটাই তোমাদের। যদি কেউ মারা যায়, কি করবে তোমরা? তোমাদের কাছে যেটা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, তা হলো টাকা। একজন খেলোয়াড়ের জীবনের কি কোনো মূল্য নেই?

ইনস্টাগ্রামে এমন পোস্টের পর তোলপাড় শুরু হয়। ঝড় উঠে নেট দুনিয়ায়।

শাস্তির আশঙ্কায় ইনস্টাগ্রামের ওই পোস্ট মুছে ফেলে ক্ষমা চান মার্সেলো মার্তিন্স। এরপরও শাস্তি এড়াতে পারেননি।

নিষিদ্ধ থাকার কারণে বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোরে চিলির বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি এই ফুটবলার।

আগামী শুক্রবার উরুগুয়ের বিপক্ষে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে খেলায় বাধা নেই এই ফুটবলারের।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসে ব্রাজিলে প্রায় পাঁচ লক্ষ মানুষ মারা গেছে। এখনও দেশটিতে দৈনিক শনাক্ত ও মৃত্যুর হার আশঙ্কাজনক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here