বন্ধুর জন্মদিনের পার্টিতে গিয়ে নিজের হাত হারালো এক কিশোর। ওই কিশোরের একটি হাতে বিষাক্ত মাদক ইনজেক্ট করা হয় বলে জানা গেছে। ভারতের কর্নাটকের বেঙ্গালুরুর চামারাজপেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বন্ধুর জন্মদিনের পার্টি থেকে ফেরার কয়েকদিন পরই হাত ফুলতে শুরু করে ওই কিশোরের। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তার হাতে বিষাক্ত পদার্থ থাকার কথা জানায়। এসময় শরীরের বাকি অংশ বাঁচাতে হাত কেটে ফেলার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এরপরই কনুই থেকে হাত পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়।

ওই কিশোরের পরিবারের দাবি, তার হাতে মাদক ইনজেকশন দেয়া হয়েছিল। জন্মদিনের পার্টির চারদিন পরই তার হাত ফুলে যায়।

ওই কিশোর জানায়, বেঙ্গালুরুর চামরাজপেট এলাকায় এক ভলিবল কোচের জন্মদিনের পার্টিতে গিয়েছিল সে। ওই কোচ কয়েকটি ট্যাবলেট পানিতে মিশিয়ে মিশ্রণটি তার শরীরে ইনজেক্ট করে দেয়।

পরে কিশোরটির পরিবার স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করে। তবে গাড়ি চুরির মামলায় এরইমধ্যে জেলে রয়েছে ওই কোচ।

এদিকে যুবকের হাতে কি ধরনের বিষাক্ত পদার্থ পাওয়া গেছে, ডাক্তারদের কাছে তা জানতে চেয়েছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here